Shadow

থানচিতে শারদীয় দুর্গোৎসবের শেষ মূহূর্তের প্রস্তুতি সম্পন্ন

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শেষ হয়েছে মহালয়া। আর কয়েক দিন পরেই শুরু হচ্ছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দূর্গাপূজা । এ উৎসবকে ঘিরে বান্দরবানের থানচি উপজেলায় নেয়া হয়েছে ব্যাপক প্রস্তুতি। এবার উপজেলায় একযোগে দুইটি মন্ডপে দূর্গা পূজা উদযাপিত হবে।

সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, প্রতি বছরের মত এবারও উপজেলায় পূজা মন্ডপের সংখ্যা দুইটি। থানচি শ্রী শ্রী রক্ষা কালী মন্দির ও বলিপড়া বাজার হিন্দু পাড়া দূর্গা মন্দিরের মন্ডপে পূর্জা অনুষ্ঠিত হবে। দূর্গা মাকে বরণ করার জন্য উপজেলার প্রতিটি পূজা মন্ডপে প্রস্তুতি প্রায় শেষ পর্যায়ে। পূজামন্ডপগুলো বর্ণিল সাজে সজ্জিত হচ্ছে। কোন পূজামন্ডপ কত বেশি সুন্দর করা যায়, সেই প্রতিযোগিতাও চলছে দুইটি পূজা মন্ডপে ।

এ প্রসঙ্গে সদর ইউনিয়নের থানচি শ্রী শ্রী রক্ষা কালী মন্দিরের দূর্গা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি সনজিৎ দত্ত ও বলিপড়া বাজার হিন্দু পাড়া দূর্গা মন্দিরের দূর্গা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি সজল কর্মকার বলেন, আমরা প্রতিবারের মত এবারও সনাতন ধর্মের নিয়ম অনুসারে প্রতিমা তৈরি করেছি। ইতিমধ্যে মন্দিরের সাজসজ্জার আর প্রতিমাকে রং করা ও সাজানোর কাজ প্রায় সম্পন্ন হয়েছে।

  সড়কে প্রাথমিক শিক্ষিকার মর্মান্তিক মৃত্যু

সরেজমিনে দেখা গেছে, দূর্গাপূজা উপলক্ষে মন্ডপে মন্ডপে প্রতিমা তৈরির কাজ শেষ। এখন সেগুলোতে রংতুলির আঁচড় দেয়া হবে। আবার কোন কোন মন্ডপে দেখা গেছে রংতুলির আঁচড় দেয়া হচ্ছে। প্রতিমা কারিগররা পূজার্থীদের প্রতিমা সঠিক সময়ে বুঝিয়ে দিতে নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছেন। পূজাস্থলকে আকর্ষণীয় করে তুলতে শহরের স্বনামধন্য লাইটিং, সাউন্ড, মিউজিশিয়ান প্রতিষ্ঠান, উপজেলার মাইক-সাউন্ড, বাদ্যযন্ত্র, ডেকোরেশন বুকিং করা হয়েছে। তৈরি করা হয়েছে ডিজিটাল ব্যানারও। এবারে মা দূর্গা আসবেন ঘোড়ায় চড়ে, আবার ঘোড়ায় চড়ে যাবেন বলে জানান সংশ্লিষ্টরা।

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *