Shadow

ফরিদপুরে নতুন করে আরও ১৫ জনের করোনা শনাক্ত

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ফরিদপুর জেলা সংবাদদাতা; জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় মুক্তিযোদ্ধাসহ আরও ১৫ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তদের বেশির ভাগই ঢাকা ও নারায়নগঞ্জ থেকে আগত কিংবা আগতদের সংস্পর্শে এসেছিলেন। এ নিয়ে ফরিদপুর জেলায় করোনাভাইরাস শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১১৮ জন।

আজ শুক্রবার (22 me 2020)  দুপুরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের করোনা ল্যাব থেকে এ তথ্য জানা যায়।

ফরিদপুরে নতুন করে যে ১৫ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে তাদের মধ্যে ১৪ জন পুরুষ এবং এজন নারী। এদের মধ্যে ফরিদপুর সদরে ৪ জন, বোয়ালমারী ও ভাঙ্গায় ৩ জন করে, নগরকান্দা ও চরভদ্রাসনে দুইজন করে এবং মধুখালীতে ১ জন। এদের মধ্যে ১০ থেকে ২০ বছরের ২ জন, ২১ থেকে ৪০ বছরের ৯ জন , ৪১ থেকে ৬০ বছরের ৩জন এবং ৬০ বছরের উর্দ্ধে আছেন ১ জন।

নতুন আক্রান্তের মধ্যে রয়েছেন একজন মুক্তিযোদ্ধা (৬৫)। তিনি ফরিদপুর শহরের বাসিন্দা এবং সদর উপজেলার সাবেক ডেপুটি কমান্ডার। একই সাথে আক্রান্ত হয়েছেন তার ভাই (৫৬)। তারা শহরে একটি ওষুধের দোকান পরিচালনা করেন। ধারণা করা হচ্ছে এ দোকানে আগত ক্রেতাদের

ফরিদপুরে মোট শনাক্ত ১১৮ জনের মধ্যে বোয়ালমারীতে ৩১ জন, ফরিদপুর সদরে ২৭ জন, নগরকান্দায় ২১ জন, আলফাডাঙ্গায় ১৭, ভাঙ্গায় ৯, চরভদ্রাসনে ৫, সদরপুরে ৪, মধুখালীতে ৩ এবং সালথায় ১ জন।

ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামান বলেন, ফরিদপুর শহরসহ বিভিন্ন উপজেলায় গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে যে ১৫ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে তাদের প্রত্যেকের বাড়ি বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। আক্রান্ত সকলের শারীরিক অবস্থা যাচাই করা হচ্ছে। শনাক্তদের বাড়িতে রেখে কিংবা শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে ফরিদপুরের করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে স্থনান্তর করা হবে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত হেলথ বুলেটিনের সর্বশেষ (২২ মে ২০২০) তথ্য অনুযায়ী, দেশে মহামারি করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২৪ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মোট ৪৩২  জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন আরও এক হাজার ৬৯৪ জন। এতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৩০ হাজার ২০৫ জনে।গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হ‌য়েছেন আরও ৫৮৮ জন। এ নি‌য়ে সুস্থ হ‌য়ে ওঠা রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ছয় হাজার ১৯০ জ‌নে। মারা যাওয়া ব্যক্তিদের সম্পর্কে জানানো হয়, হাসপাতালে মারা গেছেন ১৫ জন, বাড়িতে আটজন ও হাসপাতালে আনার পথে একজন। এদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের ১৩ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ৯ জন, বরিশাল বিভাগে একজন ও ময়মনসিংহ বিভাগের তিনজন। তাদের বয়স বিশ্লেষণে ২১-৩০ বছরের মধ্যে পাঁচজন, ৩১-৪০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৪১-৫০ দুইজন, ৫১-৬০ পাঁচজন, ৬১-৭০ ছয়জন, ৭১-৮০ দুইজন এবং ৮১-৯০ বছরের মধ্যে একজন।
আমাদের বাণী ডট কম/২২ মে ২০২০/ডিএ 

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  প্রেমে সাড়া না দেওয়ায় প্রবাসী নারীকে ইউপি মেম্বার কর্তৃক ধর্ষণের চেষ্টা