ছাত্রকে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠালেন শিক্ষক

ঠিক সময়ে বেতন দিতে না পারায় নেত্রকোনার মোহনগঞ্জে ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রকে বেত্রাঘাত করে গুরুতর আহত করেছেন এক কোচিং শিক্ষক। পরে ওই ছাত্রকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার (১৮ জুন) রাতে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর ওই শিক্ষক পলাতক রয়েছেন। জানা গেছে, উপজেলার কলেজ রোডের একটি বাসায় ‘গ্রীণ কোচিং একাডেমিতে’ পড়ান আতিকুর রহমান রাকিব। ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র ইব্রাহিম ইসলাম আবির সেখানে পড়েন। ওইদিন রাতে পড়ানোর এক পর্যায়ে কোচিংয়ের বেতন দিতে দেরি হওয়ার কারণে রাগে আবিরকে বেত্রাঘাত করে গুরুতর জখম করেন ওই শিক্ষক। এক পর্যায়ে আবির জ্ঞান হারালে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অভিযুক্ত শিক্ষক রাকিব মাইলোড়া গ্রামের আব্দুল আজিজ মাষ্টারের ছেলে। শিক্ষার্থীর বাবা সাতুর গ্রামের আয়াতুল জানান, আবির হাত-পা নাড়াতে পারছে না, সারা শরীরে ব্যাথায় কাতরাচ্ছে। শরীরে অসংখ্য বেত্রাঘাতের জখম রয়েছে। তিনি এ বিষয়ে মোহনগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করছেন বলেও জানান। এ বিষয়ে মোহনগঞ্জ থানার ওসি মো. শওকত আলী জানান, ছাত্র নির্যাতনের অভিযোগে শিক্ষক রাকিবকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

  করোনা প্রতিরোধে পুলিশের কুইক রেসপন্স টিম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *