Shadow

রাজশাহীতে করোনায় ১ম পুলিশ সদস্যের মৃত্যু, সারাদেশে মোট ১১

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

রাজশাহী সংবাদদাতা;  রাজশাহীতে এই প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এক পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার রাত ১১টার দিকে রাজশাহীর মিশন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। মৃত পুলিশের এসআই এর নাম মোশারফ হোসেন (৫৬)।

তিনি রাজশাহীর আরআরএফ (রেঞ্জ রিজার্ভ ফোর্স) কর্মরত ছিলেন। তিনি ডেপুটেশনে নওগাঁয় কর্মরত ছিলেন। সেখানে তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছিল। পরে পরীক্ষায় তার করোনা পজেটিভ ধরা পড়ে।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস জানান, অনেকটা সুস্থ ছিলেন তিনি। শুক্রবার অবস্থা একটু বেশি খারাপ হলে প্রথমে তিনি পুলিশ লাইন হাসপাতালে যান। সেখান থেকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। কিন্তু রামেক হাসপাতাল থেকে তাকে আবারো রাজশাহী মিশন হাসপাতালে পাঠানো হয়। বিকেল সাড়ে ৫টায় তিনি মিশন হাসপাতালে ভর্তি হন। এরপর রাত ১১টার দিকে তিনি মারা যান।

১৭ মে তিনি নওগাঁ থেকে রাজশাহীর চন্ডিপুর ভাড়া বাসায় অবস্থান করছিলেন।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (২১ মে ২০২০)   প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েকনস্টেবল মো. মোখলেছুর রহমান। তিনি চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের অধীন সদর কোর্টে কর্মরত ছিলেন।  কনস্টেবল মোখলেছুর রহমানের বাড়ি চাঁদপুর জেলার শাহরাস্তি থানার টামটা গ্রামে। তিনি স্ত্রী, তিন কন্যা ও এক পুত্র রেখে গেছেন।  তার মরদেহ জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

 উল্লেখ্য, এ নিয়ে বাংলাদেশ পুলিশের ১১ সদস্য করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত হেলথ বুলেটিনের সর্বশেষ (২২ মে ২০২০) তথ্য অনুযায়ী, দেশে মহামারি করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২৪ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মোট ৪৩২  জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন আরও এক হাজার ৬৯৪ জন। এতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৩০ হাজার ২০৫ জনে।গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হ‌য়েছেন আরও ৫৮৮ জন। এ নি‌য়ে সুস্থ হ‌য়ে ওঠা রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ছয় হাজার ১৯০ জ‌নে। মারা যাওয়া ব্যক্তিদের সম্পর্কে জানানো হয়, হাসপাতালে মারা গেছেন ১৫ জন, বাড়িতে আটজন ও হাসপাতালে আনার পথে একজন। এদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের ১৩ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ৯ জন, বরিশাল বিভাগে একজন ও ময়মনসিংহ বিভাগের তিনজন। তাদের বয়স বিশ্লেষণে ২১-৩০ বছরের মধ্যে পাঁচজন, ৩১-৪০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৪১-৫০ দুইজন, ৫১-৬০ পাঁচজন, ৬১-৭০ ছয়জন, ৭১-৮০ দুইজন এবং ৮১-৯০ বছরের মধ্যে একজন।
আমাদের বাণী ডট কম/২৩ মে ২০২০/ডিএ 

শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  যে যেখানে আছেন, সেখানেই ঈদ পালন করতে হবে