৭ যাত্রী নিহতের দুই দিন পার না হতেই সেই সড়কেই ঝরল কলেজছাত্রের প্রাণ

ঈদের পর দিন সুনামগঞ্জ দিরাই আঞ্চলিক সড়কের যাত্রীবাহী বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে অকালে প্রাণ হারিয়েছেন রাশেদ (২০) নামে এক কলেজছাত্র। এ দুর্ঘটনায় মাসুদ নামে আরও এক যুবক আহত হয়েছেন। ঈদুল ফিতরের পর দিন বৃহস্পতিবার বিকালে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত রাশেদ দিরাই উপজেলার করিমপুর গ্রামের জানে আলমের ছেলে ও হবিগঞ্জের বাহুবল কলেজের শিক্ষার্থী।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার বিকালে মোটরসাইকেলযোগে সহপাঠীদের নিয়ে সুনামগঞ্জে যাওয়ার পথে রাশেদ ও তার ফুফাতো ভাই মাসুদকে বহনকারী মোটরসাইকেলকে চাপা দেয় সিলেট থেকে ছেড়ে আসা দিরাইগামী একটি যাত্রীবাহী বাস।

  নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের নেই কোন নিয়ন্ত্রণ, বিপাকে সাধারণ জনতা

এ সময় রাশেদ বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান। এ সময় স্থানীয় বিক্ষুব্ধ লোকজন বাস ও চালককে আটক করে থানা পুলিশে হস্তান্তর করেন।
শুক্রবার দিরাই থানার ওসি নিহতের লাশ পরিবারের কাছে হস্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

প্রসঙ্গত কলেজছাত্র রাশেদ বাস চাকায় পিষ্ট হয়ে নিহত হওয়ার ঘটনাস্থল থেকে মাত্র দুই কিলোমিটার দূরে পবিত্র ঈদুল ফিতরের দুদিন আগে বাস ও লেগুনার সংঘর্ষে চালকসহ সাত যাত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *